Home / রহস্য / অভিশপ্ত বিয়েরর পোশাক; যার পিছনে আছে এক ভয়ংকর ইতিহাস!

অভিশপ্ত বিয়েরর পোশাক; যার পিছনে আছে এক ভয়ংকর ইতিহাস!

১৮০০ সালের দিকে একজন ধনীর ঘরের দুলালী একজন দিন মজুরের প্রেমে পড়ে যায়।. তারা নিজেদের বিয়ের আয়োজন করে ফেলেছিলো, এমনকি একটা বিয়ের ড্রেস মানে গাউন পর্যন্ত কিনে ফেলেছিলো। . কিন্তু মেয়ের বাবা চৌধুরী সাহেব মানা করে দিলেন। . এর পরে চৌধুরী সাহেব অনেক চেষ্টা করেছেন মেয়েকে ভাল জায়গায় বিয়ে দিতে। কিন্তু মেয়েটি অন্য কাউকে বিয়ে করেনি।

বাকি জীবনটুকু সে বেশীরভাগ সময় ওই বিয়ের পোশাক পড়ে কাটিয়ে দেয়। সবসময় মেজাজ থাকতো খিতখিটে আরমুখভার। এভাবে ১৯১৪ সালে তার মৃত্য হয়।
ওই বিয়ের পোষাকটা তারপর থেকে তাদের বাড়িতে একটা কাচের বাক্সে ঝুলিয়ে রাখা হয়। কিন্তু প্রায়ই ড্রেসটা বাক্সে থাকতো না। অনেকেই একে নিজে থেকে নড়তে দেখছেন। প্রায়ই এটাকে বাড়ির বিভিন্ন স্থানে পাওয়া যেত। শুধহু মাত্র কোন এয়ার টাইট বক্সে রাখলেই এটা সেখানে থাকে।
অনেকেই বিশ্বাস করেন, মেয়েটির দুঃখী আত্মা ড্রেসটি ছাড়তে পারেনি এবং সে এই ড্রেস পড়ে নেচে বেড়ায়, যা বেচে থাকতে তার কপালে জুটেনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *