Home / জানা অজানা / সুখী জীবনের জন্য জন্মক্রম অনুসারে বেছে নিন জীবনসঙ্গী

সুখী জীবনের জন্য জন্মক্রম অনুসারে বেছে নিন জীবনসঙ্গী

ভূমিকম্পে পানি হয়ে যায় সোনা!

জীবনসঙ্গী হিসেবে কাকে বেছে নেবেন, তা নিয়ে নানা ধরনের হিসাব-নিকাশ চলে সর্বদা। আর এ হিসাব-নিকাশের নানা মাত্রা রয়েছে।
এক্ষেত্রে একটি উপায় হলো জন্মক্রম অনুসারে হিসাব। এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে ইন্ডিপেনডেন্ট।
জন্মক্রম অনুসারে হিসাবটি কেমন? ধরুন আপনি পরিবারের বড় সন্তান। আপনার ব্যক্তিত্বের কয়েকটি নির্দিষ্ট বিষয় রয়েছে। আর এ বিষয়গুলো সবার সঙ্গে মিলবে না। এক্ষেত্রে আপনার জীবনসঙ্গীও যদি আপনার মতো পরিবারের বড় সন্তান হন তাহলে কিছু বিষয়ে আপনাদের ব্যক্তিত্বের সংঘাত তৈরি হতে পারে। আর এ বিষয়গুলো মেনেই সুখী পরিবার গঠন করা সম্ভব বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।
আপনি যখন প্রথম সন্তান
আপনি যদি বাবা-মায়ের প্রথম সন্তান হন তাহলে আপনার সঙ্গে সবচেয়ে ভালো মিলবে আপনার জীবনসঙ্গী যদি কোনো পরিবারের ছোট সন্তান হন তাহলে। আর আপনার সঙ্গে সবচেয়ে কম মিলবে আরেকজন বড় বা প্রথম সন্তানের।
আপনি যখন মেজো সন্তান
আপনি যদি বাবা-মায়ের মেজো সন্তান হন তাহলে জীবনসঙ্গী হিসেবে আপনার সঙ্গে সবচেয়ে ভালো মিলবে কোনো পরিবারের বড় সন্তানের সঙ্গে। সবচেয়ে কম মিলবে অন্য একজন মেজো সন্তানের।
আপনি যখন সবচেয়ে ছোট
কোনো পরিবারের আপনি যদি সবচেয়ে ছোট সন্তান হন তাহলে জীবনসঙ্গী হিসেবে অন্য কোনো ছোট সন্তানকে খুঁজে নিলে বোকামি করবেন। কারণ ছোট সন্তান হিসেবে আপনার যে চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য রয়েছে তা অন্য একজন ছোট সন্তানের মিলে যাবে। এতে উভয়ের ব্যক্তিত্বের সংঘাত তৈরি হতে পারে। তাই জীবনসঙ্গী হিসেবে বেছে নিন একজন বড় সন্তানকে।
বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ব্যক্তিত্বের সংঘাত এড়াতে এবং সুখী পরিবার গঠনে জীবনসঙ্গী বেছে নিতে এ বিষয়টি কার্যকর। তবে সব সময় যে তা কার্যকর হবে এমন কোনো কথা নেই। এ নিয়মের প্রচুর ব্যতিক্রম রয়েছে। যেমন সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিনটন ও হিলারি ক্লিনটন। উভয়েই পরিবারের বড় সন্তান।

ছেলেদের দিকে তাকিয়ে যে ১০টি জিনিস দেখে মেয়েরা!

Loading...

Check Also

শত শত বছর ধরে মানুষ বসবাস করছে কবরস্থানে

রাতে ৪০ জন স্ত্রীর সঙ্গে গোসল করাটা ছিল এই রাজার প্যাশন! মমি ও পিরামিডের জন্য …

রাতে ৪০ জন স্ত্রীর সঙ্গে গোসল করাটা ছিল এই রাজার প্যাশন!

সাপ্তাহিক যৌনহাট! জানেন কোথায়? জেনে নিন বৈভব আর রাজকীয় অর্থ নয়-ছয়ের ইতিহাসে আজও কুখ্যাতই হয়ে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *