Home / বাংলাদেশ / ‘ঢাকার হাতিরঝিলে লন্ডন ও সিঙ্গাপুরের মতো স্থাপনা নির্মাণ করা হবে’

‘ঢাকার হাতিরঝিলে লন্ডন ও সিঙ্গাপুরের মতো স্থাপনা নির্মাণ করা হবে’

‘দলীয় কোন্দলের জেরে খুন হয়েছে এমপি লিটন’!

হাতিরঝিলে লন্ডন, সিঙ্গাপুরের মতো স্থাপনা নির্মাণ করা হবে বলে জানিয়েছেন গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন। বুধবার রাজধানীর হাতিরিঝিল পরিদর্শনে গিয়ে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন।
মন্ত্রী বলেন, রাজধানী ঢাকাকে বিশেষভাবে পরিচিত করতে হাতিরঝিলকে আইকন হিসেবে গড়ে তোলা হচ্ছে। এখানে একটি উন্নতমানের কনভেনশন সেন্টার স্থাপন করা হবে। অত্যাধুনিক অপেরা হাউসও নির্মাণ করা হচ্ছে। উন্মুক্ত মঞ্চটির নির্মাণ কাজ শেষ পর্যায়ে রয়েছে এবং এটি শিগগিরই খুলে দেয়া হবে।

গণপূর্ত মন্ত্রী বলেন, একটি নান্দনিক ও আদর্শ বিনোদন কেন্দ্র হিসেবে হাতিরঝিলকে গড়ে তোলা হচ্ছে। নগরবাসীর চলাচলের সুবিধার্থে এখানে সার্কুলার বাস সার্ভিস চালু করা হয়েছে। ওয়াটার ট্যাক্সি চালু করার ফলে খুব কম সময়ে, স্বল্প খরচে জনসাধারণ ঝিলের পশ্চিমপ্রান্ত থেকে বাড্ডা বা গুলশান যেতে পারছে। গুলশান লেকের খনন কাজ চলছে। এ লেক সম্প্রসারণ করে বনানী ও বারিধারা পর্যন্ত বিস্তৃত করা হচ্ছে। তখন ওয়াটার ট্যাক্সির রুট বনানী-বারিধারা পর্যন্ত বিস্তৃত করা হবে।
তিনি বলেন, একটি পরিত্যক্ত দুর্গন্ধময় নোংরা জায়গা হাতিরঝিলকে দর্শনীয় স্থানে পরিণত করা হয়েছে। এ স্থান হয়েছে ঢাকাবাসীর প্রধান বিনোদন কেন্দ্র। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বপ্ন ছিল দর্শনীয় স্থান হিসেবে গড়ে তোলার সাথে সাথে ঢাকার উন্মুক্ত জলাধার হিসেবে হাতিরঝিলকে গড়ে তোলা। সেই স্বপ্ন আজ বাস্তবায়নের মাধ্যমে ঢাকাবাসীর স্বস্তিদায়ক স্থান হয়েছে হাতিরঝিল।

এ সময়ে হাতিরঝিল প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক মেজর জেনারেল আবু সাঈদ মো. মাসুদ, রাজউকের চেয়ারম্যান এম বজলুল করিম চৌধুরীসহ ঊর্ধতন কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

অপরদিকে রমনা পার্কের সৌন্দর্য্যবর্ধন, ঐতিহ্য সুরক্ষা ও জীববৈচিত্র সংরক্ষণের কাজ শুরু হয়েছে। একটি পয়েনসেটিয়া গাছের চাড়া লাগিয়ে গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন বুধবার এ কাজের উদ্বোধন করেন। এর আগে মন্ত্রী সৌন্দর্য্যবর্ধন কাজের ভিত্তিফলক উন্মোচন করেন। এ সময়ে গৃহায়ন ও গণপূর্ত সচিব মো. শহীদ উল্লা খন্দকার, গণপূর্ত অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী মো. রফিকুল ইসলাম, প্রধান স্থপতি কাজী গোলাম নাসির, স্থপতি তুগলক আজাদসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

‘ভোট দিলি না, টাকা দে’

Check Also

ভয়াবহ অবস্থায় দেশের উত্তরাঞ্চল

অবশেষে সিনিয়র সচিব হলেন পুলিশের আইজি একেএম শহীদুল হক দেশজুড়ে চলছে, মৃদু শৈত্য প্রবাহ। এতে …

অবশেষে সিনিয়র সচিব হলেন পুলিশের আইজি একেএম শহীদুল হক

‘সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার আগে গুলিস্তানে কোনো হকার বসতে পারবেনা’ মেয়র স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পুলিশ-১ অধিশাখা থেকে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *