Home / ইসলাম ও জীবন / নবী করিম (সা.) যে দোয়াটি সবচেয়ে বেশি পাঠ করতেন

নবী করিম (সা.) যে দোয়াটি সবচেয়ে বেশি পাঠ করতেন

 

ইসলামী জিন্দেগীর রূপ রেখা হলেন স্বয়ং রাসূল (সা.)। তিনি যা কিছু করতে, তা সবই মহান আল্লাহ তা’য়ালার জন্য করতেন। নবী করিম (সা.) অসংখ্য দোয়া পাঠ করতেন। তবে তিনি একটি দোয়া সবচেয়ে বেশি পাঠ করতেন।

সেই দোয়াটিকে সর্বশ্রেষ্ঠ দোয়া বলা হয়ে থাকে।
দোয়া: رَبَّنَا آتِنَا فِي الدُّنْيَا حَسَنَةً وَفِي الْآخِرَةِ حَسَنَةً وَقِنَا عَذَابَ النَّارِ (রাব্বানা আতিনা ফিদ্ দুনইয়া হাসানাহ্, ওয়াফিল আখিরাতি হাসানাহ্। ওয়াকিনা
আজাবান্নার)।

অর্থ: হে আমার প্রভু! আমাকে দুনিয়াতে সুখ দান কর, আখেরাতেও সুখ দান কর এবং আমাকে জাহান্নাম থেকে বাঁচাও। – সূরা আল বাকারা: ২০১‍

বিশিষ্ট তাবেয়ি হজরত কাতাদাহ (রহ.) সাহাবি হজরত আনাসকে (রা.) জিজ্ঞাসা করলেন, নবী করিম(সা.) কোন দোয়া বেশি করতেন? উত্তরে সাহাবি হজরত আনাস (রা.) উপরোক্ত দোয়ার কথা জানালেন। তাই হজরত আনাস (রা.) নিজে যখনই দোয়া করতেন- তখনই দোয়াতে এই আয়াতকে প্রার্থনারূপে পাঠ করতেন। এমনকি কেউ তার কাছে দোয়া চাইলে তিনি তাকে এ দোয়া দিতেন। – সহিহ মুসলিম : ৭০১৬

হজরত আনাস (রা.) আরও বলেন, আল্লাহতায়ালা এ দোয়ায় দুনিয়া ও আখেরাতের সকল কল্যাণ ও জাহান্নাম থেকে পরিত্রাণের প্রার্থনা একত্রিত করে দিয়েছেন।

আল্লাহ তা’য়ালা আমাদের সবাইকে দুনিয়া ও আখেরাতে কল্যাণ দান করুন। সেই সঙ্গে সকল প্রকার অকল্যাণ থেকে হেফাজত করুন। আমিন।

Loading...

Check Also

মুসলিম হয়ে অন্য ধর্মাবলম্বীকে বিয়ে: ইসলাম কী বলে?

মুসলিম হয়ে অন্য ধর্মাবলম্বীকে বিয়ে করা প্রসঙ্গে আল্লাহ তাআলা ইরশাদ করেন- ‘আর তোমরা মুশরিক নারীদের …

এই সূরা পাঠ করলে আল্লাহ্ তায়ালা মনের নেক বাসনা পূর্ণ করেন

  আবু সোলায়মান দারানী বলেন, যে ব্যক্তি আল্লাহর কাছে কোন প্রার্থনা করতে চায়, তার উচিত, …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *